কবিতার কাছে

 

 

tagore portrait-1

কি হবে কবিতা দিয়ে?
এই প্রশ্ন নিয়ে বারবার ফিরে যাওয়া কবিতার কাছে
কবিতার সব কিছু আছে : বারান্দায় ভেজা শাড়ি, অখন্ড দুপুর,
দেবদারু, ভাঙ্গা মেঘ, অসুখ বিসুখ —
স্তব্ধতা ভালো লাগে প্রেমে ও বিষাদে
অন্তহীন ছন্দ-রতি ক্লান্তিকর কখনো সখনো —
কবিতা যে জানে !
কবিতাকে ভালবাসি আমি ।
নৈঃশ্বব্দ্য, অভিমান, আত্ম-বিজ্ঞাপন ;
হঠাৎ ঝলসে ওঠা আতসের কাঁচ
আদিম নিষ্ঠুরতা,কিশোরীর মান
এইসব জোড়া তাড়া দিয়ে
রাত্রিবাস পরা এক স্থির চিত্র যেন,
হৃদয়ের ক্ষীণ ওঠা-নামা ত্রস্ত করে, অবসন্ন করে ,
তারপর, দুই হাত ভরে তুলে ধরে
নিবিড় নিটোল এক নিরুচ্চার বোধ —
কবিতা কি চলে যেতে পারে? এই ভয়ে মধ্য রাত,
দুই হাতে মুখ ঢেকে ভাবা আর নয়,এ ভাবে হয় না
এইবার অন্যতর খোঁজ ।
ভালবাসা থেকে তাকে দূর দূরান্তরে
সেখানে একলা আমি কবিতার পাশে,
রাজপথে, বিপ্লবে, শ্মশানে-মশানে
বারবার তাকে চাওয়া দুর্ভিক্ষ আবেগে :
এইটাই শেষ সত্য, কবিতা তা জানে!

ছবি: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 

Advertisements

About purnachowdhury

I am a person of and for ideas. They let me breathe.
This entry was posted in Uncategorized. Bookmark the permalink.

5 Responses to কবিতার কাছে

  1. Pingback: কবিতার কাছে | Methinks…

  2. Sanchita Tapadar says:

    খুব খুব ভাল লাগল।

  3. কি ভালো। খুব ভালো লেগেছে।

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s